ঢাকা, বুধবার 02 August 2017, ১৮ শ্রাবণ ১৪২8, ৮ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে -কমিশন চেয়ারম্যান

 

স্টাফ রিপোর্টার : জাতীয় মানবাধিকার কমিশন চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক বলেছেন, রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় সমাজে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। ক্ষমতাসীন দলের পৃষ্ঠপোষকতায় দুর্বৃত্তরা বেপরোয়া হয়ে উঠছে। বগুড়াতে মেয়েকে ধর্ষণ করার পর মা ও মেয়েকে মাথা ন্যাড়া করে দেয়ার ঘটনা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। শুধু মানবাধিকার লঙ্ঘন নয় এটা একটা গুরুতর অপরাধ। এই কাজ যারা করেছে তারা মানুষ রূপে পশু। এই ঘটনার জন্য আমরা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন। 

গতকাল মঙ্গলবার সংবাদ মাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, আমাদেরকে বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। এই অসাধু ও নরপিশাচদের আইনের প্রতি ভয়ভীতি নেই। যার কারণে তারা বারবার অপরাধ সংগঠিত করছে। বগুড়াতে যারা অপারাধ সংগঠিত করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

কাজী রিয়াজ বলেন, অপরাধ করে পার পেয়ে যাওয়ার মানসিকতা থেকে অসাধু ও দুষ্ট চক্রের মধ্যে জন্ম হচ্ছে। শাস্তি নিশ্চিত করার মাধ্যমে এই মানসিকতা ভাঙ্গতে হবে। যতদিন পর্যন্ত অপরাধীদের এই মানসিকতা ভাঙ্গা না যাবে ততদিন এই প্রবণতা বাড়তেই থাকবে। এ সময় তিনি বলেন, এই বিচার প্রক্রিয়ায় পুলিশের এফআইআর থেকে শুরু করে তদন্ত, প্রসিকিউশন প্রত্যেককেই নিজের জায়গা থেকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। আমাদের প্রত্যাশা থাকবে এদের শাস্তি নিশ্চিত করার মাধ্যমে দেশে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপিত হবে। আর এর মাধ্যমেই অপারাধীদের ভয়ের সৃষ্টি হবে। এটা দৃশ্যমান করতে না পারলে অপরাধ কমানো সম্ভব না। নির্যাতিতার যদি আইনি সহায়তা চান তাহলে আমারা তাদেরকে আইনী সহায়তাও দিব।

মানবাধিকার কমিশন চেয়ারম্যান বলেন, অপরাধ করে পার পেয়ে যাওয়ার মানসিকতা তৈরি হয় রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক এবং সামাজিকভাবে প্রভাবশালীদের মধ্যে। এরা রাজনীতি, প্রশাসন এবং অর্থকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে এ ধরনের যতগুলো ঘটনা ঘটেছে সবগুলোর সাথে এই দুষ্ট চক্র জড়িত। এরা ক্ষমতার কাছাকাছি থাকে। বগুড়াতে যে ঘটনা ঘটেছে সেখানকার প্রশাসন সঠিক প্রদক্ষেপ নিয়েছে। তাদের গ্রেফতার করে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে রিমান্ডে নিয়েছে। অপরাধীরা সরকারি দলের লোক হওয়া সত্ত্বেও তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এর মাধ্যমে একটি ম্যাসেজ সবার কাছে গেছে সরকারি দলের লোক হলেও অপরাধের জন্য শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ