ঢাকা, শুক্রবার 01 September 2017, ১৭ ভাদ্র ১৪২8, ০৯ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

কিংবদন্তি শিল্পী আবদুল জব্বারের শেষ বিদায়

 

সাদেকুর রহমান : বৈরি আবহাওয়া স্বত্ত্বেও স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কন্ঠসৈনিক, কিংবদন্তি শিল্পী মোহাম্মদ আবদুল জব্বারকে যথাযথ সম্মানের সাথে ‘হাজার সালাম’ জানিয়ে চিরসমাহিত করা হয়েছে। এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে যেন গূণী শিল্পীর মৃত্যুতে শোক সইতে না পেরে আকাশও অঝরে কাঁদে। আর অবিরাম বৃষ্টি মাথায় নিয়েই প্রিয় শিল্পীকে ফুলেল শ্রদ্ধা জানাতে অগণিত মানুষ আসে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। কেউ মাথার ওপর ছাতা ধরেছেন, কেউ দীর্ঘ সারিতে দাঁড়িয়ে ভিজে অপেক্ষা করেছেন প্রিয় মানুষটিকে শেষবার দেখার জন্য। বৃষ্টি আর চোখের পানিতে একাকার হলো কারও কারও মুখ।

একদিন আগে বুধবার সকাল ৯টা ১০ মিনিটে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তিকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। স্বাধীনতা পুরস্কার ও একুশে পদকজয়ী কণ্ঠশিল্পী আবদুল জব্বার কিডনি জটিলতার পাশাপাশি হৃদযন্ত্র ও প্রোস্টেটের সমস্যায় ভুগছিলেন। ‘ওরে নীল দরিয়া’, ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ এর মতো বহু কালজয়ী গানের এ শিল্পীর মৃত্যুতে দেশীয় সঙ্গীতাঙ্গণে শোকের ছায়া নেমে আসে। বরেণ্য সঙ্গীত শিল্পী খুরশিদ আলম, সাবিনা ইয়াসমিনসহ নবীন-প্রবীণ অনেক শিল্পীই তাকে অভিভাবকের আসনে বসিয়ে তার সৃষ্টি সম্ভারের সংরক্ষণের দাবি জানিয়েছেন। 

 বেলা সোয়া ১১টার পর এই মুক্তিযোদ্ধার কফিন জাতীয় পতাকায় মুড়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নিয়ে আসা হয় সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য। রাষ্ট্রীয় বিধি অনুযায়ী, ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দেয়া হয় গার্ড অব অনার। এরপর বাদ যোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে তার প্রথম নামাযে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। সেখান থেকে নেয়া হয় মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে। বিকেলে দ্বিতীয় নামাযে জানাযা শেষে বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য নির্ধারিত স্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হন দরাজ কন্ঠের শিল্পী জব্বার।

বুধবার রাতে শিল্পীর নিথর দেহ ছিল বারডেম হাসপাতালের হিমঘরে। সেখান থেকে গতকাল সকালে প্রথমে নেয়া হয় আগারগাঁওয়ে, তার কর্মস্থল বাংলাদেশ বেতার। সেখানে তার প্রথম নামাযে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পীদের পাশাপাশি বেতারের কর্মকর্তা ও কলাকুশলীরা সেখানে আবদুল জব্বারের নামাযে জানাযায় অংশ নেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ