ঢাকা, বুধবার 06 September 2017, ২২ ভাদ্র ১৪২8, ১৪ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ঝালকাঠি জেলায় ১৩০টির মধ্যে ১০৬ করাতকল চলছে লাইসেন্স ছাড়াই

মোঃ আতিকুর রহমান, ঝালকাঠি: ঝালকাঠি জেলার ৪ টি উপজেলায় ১৩০টি করাত কলের মধ্যে লাইসেন্স নবায়ন রয়েছে ২৪ টির। বাকি ১০৬ টি করাত কলের লাইসেন্স না থাকায় এখন এক প্রকারে অবৈধভাবেই চলছে এসব করাত কল। করাত কল মালিক সমিতির সঙ্গে বন বিভাগের সমঝোতা না থাকায় লাইসেন্সবিহীন এসব করাতকল চলছে বলে অভিযোগ রয়েছে। জেলা করাতকল মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ সোহরাব হোসেন জানান, ঝালকাঠি জেলায় ১৭৩টি করাত কল থাকলেও আমাদের সমিতির অন্তর্ভূক্ত রয়েছে ৯২টি। আমরা করাত করের মলিকগণ বিগত বছরে করাত লাইসেন্স বিধিমালা ১৯৯৮ অনুসারে করাত কল পরিচালনার জন্য সরকারের দেয়া লাইসেন্স গ্রহণ করে আসছি। কিন্তু বনবিভাগ এবং উপজেলা ভূমি অফিস আমাদেরকে বিভিন্ন কায়দায় বিভিন্নভাবে হয়রানী করছে যার কারণে আমরা করাত কল মালিকগণ নানাবিধ সমস্যার সম্মূখীন হচ্ছি। ২০১২ সালের সালের গেজেট অনুযায়ী পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র গ্রহণে বাধ্য-বাধকতা না থাকা সত্ত্বেও আমাদের কাছ থেকে সেই ছাড়পত্র চাওয়া হয়। এসব প্রক্রিয়ার কারণে করাত কল মালিকরা হয়রানি স্বীকার ও শ্রমিকরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে করাত কল বন্ধ করে দিতে বাধ্য হচ্ছে। যার ফলে করাত কল মালিক-শ্রমিক অনাহারে-অর্ধাহারে মানবেতর জীবনযাপন করছে। ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি আরো বলেন, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের বিধিমালা ২০১২ এর পরিবেশ ছাড়পত্রের কথা উল্লেখ না থাকলেও কর্তৃপক্ষ আমাদেরকে অহেতুক হয়রানি করছে। আমাদের লাইসেন্স নবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আমাদের কোন হয়রানি না করার জন্যও আহ্বান জানান তিনি। শনিবার দুপুরে ঝালকাঠির কাঠপট্টিস্থ জেলা করাত কল মালিক সমিতির কার্যালয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ