ঢাকা, রোববার 10 February 2019, ২৮ মাঘ ১৪২৫, ৪ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

পুঠিয়ায় পেট্রোল দিয়ে গৃহবধূর মুখ ঝলসে দেয়া ছাত্র গ্রেফতার

রাজশাহী অফিস : রাজশাহীর পুঠিয়ায় শিশু সন্তানের সামনে গৃহবধূর মুখ ঝলসে দেয়ার ঘটনায় ‘ফেসবুক প্রেমিক’ নাইম ইসলামকে (২৩) গত শুক্রবার ভোরে ঢাকার ধামরাইয়ের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। পরে রাতে তাকে রাজশাহীতে আনা হয়।
গ্রেফতারকৃত নাইম ঢাকার ধামরাই থানার আইনগঞ্জের হাসান আলীর ছেলে এবং ধামরাই কলেজের স্নাতক শেষ বর্ষের ছাত্র। আর হামলার শিকার জেরিন আক্তার মিলি (২৬) রাজশাহী কলেজের অর্থনীতি মাস্টার্সের  শিক্ষার্থী। জেরিন বর্তমানে ঢাকায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পিবিআই রাজশাহীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম আযাদ জানান, বোরকা পরে আক্রমণ করায় এ ঘটনার কোনো ‘ক্লু’ পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে তারা তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় নাইমকে সনাক্ত করেন। শুক্রবার ভোরে কৌশলে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে নাইম সব স্বীকার করে। আবুল কালাম আযাদ জানান, গত ২৯ জানুয়ারি রাজশাহীর পুঠিয়ার বানেশ্বরে শিশু সন্তানের সামনেই গৃহবধূ জেরিনের মুখে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামী করে থানায় মামলা করেন তার ভাই জিসান হোসেন। তবে অপরাধী বোরকা পরা থাকায় ওই ঘটনায় জড়িত কাউকে চিহ্নিত করতে হিমশিম খাচ্ছিল পুঠিয়া থানা পুলিশ। পরে পিবিআইয়’র ঢাকার বিশেষ টিমের সহযোগিতা নেয়া হয়। এর একপর্যায়ে নাইমকে চিহ্নিত করে তাকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে নাইম জানিয়েছে, জেরিনের স্বামী মিজানুর রহমান একটি বেসরকারি ব্যাংকে চাকরি করতেন। কয়েক বছর আগে তিনি ঢাকায় কর্মরত ছিলেন। তখন স্বামী মিজানুরের সঙ্গে জেরিনও ঢাকায় থাকতেন। ওই সময় ইডেন কলেজে ডিগ্রিতে পড়াশোনা করতেন জেরিন। তখন ফেসবুকে ধামরাই কলেজের এইচএসসি’র শিক্ষার্থী নাইমের সঙ্গে জেরিনের পরিচয় হয়। তাদের মধ্যে আলাপ চলতে থাকে। একপর্যায়ে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন জেরিন। তার স্বামীর অজান্তে জেরিন নাইমের সঙ্গে নিয়মিত দেখা করতেন। এরই মধ্যে জেরিন একটি সন্তানের মা হন। প্রায় তিন বছর আগে মিজানুর তার স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে পুঠিয়ার বানেশ্বরে চলে আসেন। তারপরও নাইমের সঙ্গে জেরিনের যোগাযোগ অব্যাহত থাকে। গত নভেম্বরে নাইম ঢাকা থেকে বানেশ্বর গিয়ে জেরিনের সঙ্গে দেখা করেন। তবে এসবের কিছুই জানতেন না জেরিনের স্বামী। বয়সে বড় হলেও স্বামী-সন্তান রেখে তার সাথে পালিয়ে বিয়ে করার জন্য জেরিনকে প্রস্তাব দিয়েছিল নাইম। কিন্তু জেরিন সায় না দিয়ে ফেসবুকে তাকে ব্লক করে দেন। নাইমের ফোন ধরাও বন্ধ করে দেন। গত ২৮ জানুয়ারি নাইম পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বরে যায়। সেখানে গিয়ে দুই বোতল অকটেন কেনে। যাওয়ার সময় এক বান্ধবীর কাছ থেকে বোরকা নিয়ে যায়। তা পরেই ২৯ জানুয়ারি ভোরে জেরিনের বাড়ির সামনে যায়। জেরিন তার সন্তানকে নিয়ে স্কুলে যাওয়ার সময় নাইম একটি মশালে অকটেন ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে জেরিনের মুখের ওপর ছুড়ে পালিয়ে যায়। ওই আগুনেই ঝলসে যায় জেরিনের মুখ।
রাজশাহীতে বিচারকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ চুরি!  : রাজশাহীতে একজন বিচারকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার রাতে নগরীর মিঠুর মোড় এলাকায় রাজশাহীর যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ আবুল কালাম আজাদের ভাড়া বাড়িতে এই চুরির ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় বিচারক নিজেই নগরীর রাজপাড়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। রাজপাড়া থানার পুলিশ জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে জজের বাসায় কেউ ছিলো না। এ সময় চোরেরা বাড়ির তালা কেটে ভেতরে প্রবেশ করে। এরপর দুটি স্বর্ণের চেইন, একটি আংটি, ল্যাপটপ ও নগদ টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। পরে বাড়ি ফিরে চুরির বিষয়টি টের পান পরিবারের সদস্যরা। এরপর থানায় অভিযোগ করা হয়।
সেমিনার সমাপ্ত : রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েট) শুক্রবার সন্ধ্যায় শেষ হয়েছে “প্ল্যানিং, আর্কিটেকচার এন্ড সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং (আইসিপিএসিই ২০১৯)” শীর্ষক দু’দিন ব্যাপী আন্তর্জাতিক সেমিনার।
শুক্রবার সন্ধ্যায় পুরকৌশল বিভাগের সম্মেলন কক্ষে এই সেমিনারের সমাপ্তি ঘোষণা করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি রুয়েট’র ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেরস ড. মো. রফিকুল ইসলাম সেখ। এতে বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ, অধ্যাপক, গবেষক এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ের উর্ধ্বতন প্রকৌশলীগণ এবং রুয়েটের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন নেদারল্যান্ডের ডিল্পট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. ইর লুক রেইটভেল্ট, ইউনিভার্সিটি অব সাউথ অস্ট্রেলিয়ার প্রফেসর ড. মো. মিজানুর রহমান, বুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের প্রফেসর ড. মো. হাবিবুর রহমান এবং প্রফেসর ড. মেহেদী আহমেদ আনসারী। সভাপতিত্ব করেন পুরকৌশল অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. আব্দুল আলীম। স্বাগত বক্তব্য দেন কনফারেন্সের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পুরকৌশল বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান।
রাবি শিক্ষার্থীর আকস্মিক মৃত্যু : বুকের ব্যথা উঠে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) জামিউল হাসান (২৩) নামে এক শিক্ষার্থীর আকস্মিক মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাত আটটার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
জামিউল হাসান ইংরেজি বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী। তিনি সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের বাসিন্দা রফিকুল ইসলামে ছেলে। মহানগরীর ভদ্রা এলাকার একটি মেসে থাকতেন। জামিউলের সহপাঠি অনিক জানান, জামিউল সুস্থই ছিলেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় হঠাৎ বুকে ব্যথা উঠে। এসময় তিনি গ্যাস্ট্রিকের ব্যথা ভেবে ওষুধ খান। কিন্তু বুকের ব্যথা না কমায় মেসের বন্ধুরা তাকে রামেক হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইংরেজি বিভাগের একজন শিক্ষক জানান, ‘তিনি হাসপাতালে গিয়েছিলেন। তবে তার মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। ময়নাতদন্তের পর কারণ জানা যাবে। তার পরিবারকে খবর দেয়া হয়েছে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ