ঢাকা, রোববার 10 February 2019, ২৮ মাঘ ১৪২৫, ৪ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ডিএনসিসি মেয়র নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন ববি হাজ্জাজ

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন না ন্যাশনালিস্ট ডেমোক্রেটিক মুভমেন্টের (এনডিএম) চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ। গতকাল শনিবার তিনি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন বলে রির্টানিং কর্র্মকতা আবুল কাশেম জানিয়েছেন।
ববি হাজ্জাজ সরে যাওয়ায় এখন মেয়র পদের জন্য ভোটের লড়াইয়ে থাকলেন পাঁচজন। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়েছেন তৈরি পোশাক ব্যবসায়ী আতিকুল ইসলাম। বিএনপি এই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে না। অন্য মেয়র প্রার্থীরা হলেন- জাতীয় পার্টির শাফিন আহমেদ, পিডিপির শাহীন খান, এনপিপির আনিসুর রহমান দেওয়ান ও স্বতন্ত্র মোহাম্মদ আব্দুর রহিম।
আনিসুল হকের মৃত্যুর পর গত বছর এই উপ-নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু হলে ববি হাজ্জাজের দল এনডিএম থেকে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন ব্যান্ড শিল্পী শাফিন। আদালতের আদেশে সে সময় নির্বাচন আটকে যায়। এবার জাতীয় পার্টির হয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর বাছাইয়ে ঋণ খেলাপের কারণে তা বাতিল হলেও পরে প্রার্থিতা ফিরে পান তিনি। বিতর্কিত ব্যবসায়ী মুসা বিন শমসেরের বড় ছেলে ববি হাজ্জাজও জাতীয় পার্টিতে ছিলেন। ২০১৫ সালে ঢাকা সিটির নির্বাচনের সময় জাতীয় পার্টি প্রার্থী ঠিক করার পর তার বিপরীতে মেয়র পদে প্রার্থিতা ঘোষণা করায় তাকে বিশেষ উপদেষ্টার দায়িত্ব থেকে বাদ দেন এইচ এম এরশাদ। এরপর একাদশ সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ২০১৭ সালের এপ্রিলে ববি হাজ্জাজ নতুন দল ন্যাশনালিস্ট ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট (এনডিএম) গঠনের ঘোষণা দেন। গত ৩০ জানুয়ারি নির্বাচন কমিশনের নিবন্ধন পেয়েছে এই দল।
মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের কারণ জানতে চাইলে ববি হাজ্জাজ বলেন, “আমাদের দল ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট এখন নিবন্ধিত দল। নিবন্ধন পাওয়ার আগেই আমি মনোনয়নপত্র কিনেছিলাম। এখন দলের সিদ্ধান্তে সরে দাঁড়াচ্ছি।” তবে ভবিষ্যতে এনডিএম সব র্নিবাচনে অংশ নেবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।
আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের উপ-নির্বাচন এবং দুই সিটি করপোরেশনে নতুন করে যুক্ত হওয়া ওয়ার্ডগুলোতে ভোট হবে। মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় থাকা পাঁচ প্রার্থীকে আজ রোববার প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে বলে রিটার্নিং কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ