ঢাকা, রোববার 10 February 2019, ২৮ মাঘ ১৪২৫, ৪ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কাউখালীতে মসজিদের চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র করে আহত ৭ গ্রেফতার ১

কাউখালী (পিরোজপুর) সংবাদদাতা : পিরোজপুরের কাউখালীতে মসজিদের চাঁদা আদায়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে মসজিদের খাদের বাড়িতে হামলায় একই পরিবারের ৭ জন গুরুতর আহত এবং বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার বিকেলে উপজেলার আমরাজুড়ী ইউনিয়ন পরিষদের সামনে কুমিয়ান বায়তুল আমান জামে মসজিদের উন্নয়নের জন্য মসজিদের পাশে সন্ধ্যা নদীতে ভিড়ানো জাহাজে মসজিদের খাদেম কুমিয়ান নিবাসী আঃ মজিদ চাঁদা কালেকশন করতে গেলে স্থানীয় গোপাল চন্দ্রের ছেলেরা বাঁধা দেয় এবং খাদেম এর ওপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে বাক বিত-তায়া জড়িয়ে পরে। পরে স্থানীয় তাৎক্ষণিক মিমাংসা করে দেয়া হয়।
 পরবর্তীতে রাতে গোপাল চন্দ্রের ছেলে সত্য চন্দ্র, ইন্দ্রজিৎ চন্দ্র, সুধীর চন্দ্র, ও কালু চন্দ্রের নেতৃত্বে মসজিদের খাদেম আঃ মজিদ এর বাড়ীতে দলবদ্ধভাবে লাঠি সোটা আক্রমণ চালায় এতে একই পরিবারের ৭ জন গুরুত্বর জখম হয়। এসময় হামলকারীরা বসতঘরও ভাংচুর করে। তাদের ডাক চিৎকারে আক্রমণকারীরা পালিয়ে যায়। গুরুত্বর আহতরা হলেন, মনির হাওলাদার (৩৫) আয়না বেগম (৬০) ঝাদিজা বেগম (৩৬) রিপন হাওলাদার (৩২) মজিদ হাওলাদার (৬৫) তাজেল হাওলাদার (৫৫) বেলায়েত (৩৮)। এদেরকে রাতেই উপজেলা স্বাস্থ্যূ কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে মনির হাওলাদার, আয়না বেগম এবং খাদিজা বেগমের অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
এ বিষয়ে কাউখালী থানার একটি মামলা হয়েছে এবং থানা পুলিশ ইন্দ্রজিৎ চন্দ্র কে গ্রেফতার করেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ