ঢাকা, বৃহস্পতিবার 13 February 2020, ৩০ মাঘ ১৪২৬, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে--নান্নু

স্পোর্টস রিপোর্টার : টানা বাজে হারের বৃত্তে টিম বাংলাদেশ। ঘরে বাইরে দৃষ্টিকটু টেস্ট হারতো নিয়মিত ঘটনায় রূপ নিয়েছে। সবশেষ রাওয়ালপিন্ডি টেস্টে ইনিংস ও ৪৪ রানে হারের পর প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছেন তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের মত অভিজ্ঞরা। বিশেষ করে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের টেস্ট দলে অন্তর্ভুক্তি নিয়েও গণমাধ্যমের প্রশ্নের তির প্রধান নির্বাচকের দিকে। মিনহাজুল আবেদিন নান্নু অবশ্য পাশে দাঁড়াচ্ছেন ক্রিকেটারদের। পর্যাপ্ত বিকল্প নেই বলে এখনই পরিবর্তন সম্ভব নয় বলেও মত নান্নুর। অভিজ্ঞ, অনভিজ্ঞ সব ক্রিকেটারের কাছ থেকে একই ফল পাচ্ছেন নির্বাচকরা। এখনই পরিবর্তন নয় উল্লেখ করে প্রধান নির্বাচক জানান দিতে চান আরও সময়, ‘চাইলেই তো সব ক্রিকেটারকে আপনি পরিবর্তন করে দিতে পারেন না। এটা তো বললে হবে না। একটা দল থেকে আপনি ফলাফল পাচ্ছেন না, একটু অপেক্ষা করতে হবে। এদেরকে একটু দেখাশোনা করতে হবে। এরপর আগামী দিনের জন্য প্রস্তুত করতে হবে।’ তিন ফরম্যাটেই তামিম, মাহমুদউল্লাহ অটো চয়েজ। তবে ফরম্যাট বিবেচনায় নিজেদের মেলে ধরতে পারছেন না দুজনেই। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন ওঠে ফরম্যাট ঠিক করে সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারকে খেলানো হয় না কেন? টি-টোয়েন্টিতে তামিম যেমন পরিস্থিতি অনুযায়ী খেলতে ব্যর্থ তেমনি টেস্টে মাহমুদউল্লাহর অবস্থাও একই। অটো চয়েজ ধরে তিন ফরম্যাটেই খেলানোর প্রসঙ্গ আসতেই প্রধান নির্বাচকের কণ্ঠে বিরক্তির সুর। টানা খেলা অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারদের নিয়ে এমন প্রশ্নতেই আপত্তি তার, ‘আমি একটা ব্যাপার বুঝলাম না যে এটা কেন কথা হচ্ছে। সিনিয়র ক্রিকেটাররা গত পাঁচ বছর ধরে খেলে যাচ্ছে, তারা কিন্তু নন স্টপ খেলে যাচ্ছে। ওদের কিন্তু বিশ্রাম দেয়া হচ্ছে না। সুতরাং এ ধরনের প্রশ্ন আসার কোনো মানে হয় না।’ সবশেষ ৬ টেস্টে হার, যার পাঁচটিই ইনিংস ব্যবধানে। ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ইনিংস হার এড়ানো ম্যাচটিও হারতে হয়েছে ২২৪ রানের বড় ব্যবধানে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আরেকটি সিরিজ সামনে রেখে কি ভাবছেন নির্বাচকরা? নান্নু জানান, ‘বৃহস্পতিবার এই ব্যাপারে আমাদের মিটিং আছে। এটা নিয়ে আমরা বসবো এবং ভবিষ্যতের জন্য যেটা সঠিক সেটাই করা হবে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ