ঢাকা, সোমবার 17 February 2020, ৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

সাতক্ষীরায় ছেলের করোনাভাইরাসের গুজবে মায়ের মৃত্যু

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় ছেলের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার গুজবে মায়ের হার্ট এ্যাটাকে মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।খবর ইউএনবি'র।

উপজেলার পদ্মপুকুর ইউনিয়নের পাতাখালি গ্রামে ঘটনা ঘটে।পদ্মপুকুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।তিনি জানান, পাতাখালি গ্রামের বাসিন্দা রতন রপ্তান (৩৫) করোভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে, এলাকায় এমন গুজব ছড়িয়ে পড়ার পর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মা রেনুকা রপ্তানের (৫৬) মৃত্যু হয়েছে।

তিনি আরো জানান, কিছুদিন আগে ভারতে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যায় রতন রপ্তান। গত সোমবার ভোমরা বন্দর দিয়ে বাড়িতে আসার সময় সর্দি, কাশি ও জ্বর থাকায় রতনকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে থেকে রতন বাড়ি ফিরে আসে। পরে স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন রতনকে খোঁজাখুঁজি শুরু করে।

এরপরই গুজব ছড়িয়ে পড়ে যে, ‘রতনের করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে এবং পুলিশ তাকে গুলি করে মেরে ফেলবে।’

একথা শুনেই দুশ্চিন্তায় রতনের মা রেনুকা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টার দিকে মারা যান। তিনি পাতাখালি গ্রামের বিমান রপ্তানের স্ত্রী।

ঘটনার বিষয়ে শ্যামনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অজয় সাহা জানান, করোনাভাইরাস সন্দেহে রতনকে সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখান থেকে কাউকে কিছু না জানিয়ে সে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে স্বাস্থ্য বিভাগ ও পুলিশের পক্ষ থেকে তাকে খোঁজাখুঁজি করা হয়। তবে রতনের শরীরে করোনাভাইরাসের কোনো আলামত পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন হুসাইন শাফায়াত বলেন, রতনের শরীরে করোনাভাইরাসের কোনো জীবাণু পাওয়া যায়নি। তবে এলাকার মানুষের গুজবের জন্য রতনের মা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। বিষয়টি মর্মান্তিক ও দু:খজনক।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ