ঢাকা, শুক্রবার 14 February 2020,১ ফাল্গুন ১৪২৬, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

আসামে বন্ধ হচ্ছে সরকারি মাদরাসা সংস্কৃত টোল

১৩ ফেব্রুয়ারি, এনডিটিভি : ভারতের আসাম রাজ্যে সরকারি সব মাদরাসা ও সংস্কৃত টোল বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থানীয় সরকার। আগামী ছয় মাসের মধ্য ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে সাধারণ স্কুলে পরিণত করা হবে। বুধবার রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা এই ঘোষণা দেন।

সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘আসামের বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার ২০১৭ সালে মাদরাসা ও সংস্কৃত টোল বোর্ড তুলে দিয়ে বোর্ডের অধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধিভুক্ত করেছিল; এখন তারা সেগুলোকে পুরেপুরি বন্ধ করে দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে। ‘

গত বুধবার এই সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। তিনি বলেছেন, ‘শিশুদের ধর্ম, ধর্মগ্রন্থ ও ভাষা, যেমন আরবি, শিক্ষা দেওয়া ধর্মনিরপেক্ষ সরকারের কাজ না।’ তিনি আরও বলেন, ‘আসামে প্রায় ১২০০ মাদরাসা ও ২০০ সংস্কৃত টোল আছে, কিন্তু এগুলো পরিচালনা করার মতো স্বতন্ত্র কোনও বোর্ড নেই। এই প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষার্থীরা ম্যাট্রিকুলেশন বা উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলের সমমানের সার্টিফিকেট পাওয়ায় অনেক সমস্যা তৈরি হচ্ছে। এ কারণেই রাজ্য সরকার সব মাদরাসা ও সংস্কৃত টোলকে নিয়মিত স্কুলে পরিণত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

মাদরাসাগুলোকে সাধারণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিণত করার পাশাপাশি রাজ্যটিতে বিদ্যমান প্রায় দুই হাজার বেসরকারি মাদরাসাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে কঠোর বিধিবিধান আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘রাজ্য সরকার ধর্মনিরপেক্ষ সত্তা হওয়ায় এটি ধর্মীয় শিক্ষায় নিয়োজিত সংস্থাকে অর্থায়ন করতে পারে না। তবে বেসরকারি মাদরাসা ও সংস্কৃত টোলগুলো কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে পারবে, কিন্তু তারা যেন একটি নিয়ন্ত্রক কাঠামো অনুযায়ী চলে তা নিশ্চিত করতে আমরা শিগগিরই নতুন একটি আইন করবো।’

শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, ধর্মীয় শিক্ষার পাশাপাশি বাধ্যতামূলক সাধারণ শিক্ষা মাদরাসাগুলোতে নিশ্চিত করতেও পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। অভিভাবকের নেওয়া সিদ্ধান্তের কারণে শিশুরা যেন উপযুক্ত শিক্ষা থেকে বঞ্চিত না হয়, তা নিশ্চিত করতেই এসব পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ