ঢাকা, বুধবার 1 April 2020, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, ৬ শাবান ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

চীনা নাগরিকের মাধ্যমে ইউরোপেও মৃত্যুর কড়া নাড়ল কোভিড-১৯

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক চীনা পর্যটক ফ্রান্সে মারা গেছেন। আজ শনিবার ফরাসি স্বাস্থ্যমন্ত্রী অ্যানিয়েস বুজোঁ এ তথ্য নিশ্চিত করেন। এ ভাইরাসে ইউরোপে এটিই প্রথম মৃত্যু। পর্যটকের বয়স ৮০ বছর বলে জানা গেছে।

ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত ১১ জনের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার পরাশক্তি চীনের উহান রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ার পর এশিয়ার বাইরে প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে প্রথমবারের মতো আক্রান্ত হয়ে কারো মৃত্যু হলো।

ফ্রান্সের স্বাস্থ্যমন্ত্রী অ্যাগনেস বুজিন বলেন, চীনের হুবেই প্রদেশের বাসিন্দা ৮০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি ১৬ জানুয়ারি ফ্রান্সে আসেন। ২৫ জানুয়ারি তাকে প্যারিসের হাসপাতালে কোয়ারেন্টিন করে রাখা হয়।

এর আগে চীনের মূল ভূখণ্ডের বাইরে কেবল তিনটি দেশে- হংকং, ফিলিপাইন ও জাপানে- নতুন করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়।

তবে চীনের ভেতরে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেড় সহস্রাধিক মানুষ মারা গেছে, যাদের বেশিরভাগই হুবেই প্রদেশের।

নতুন করে আরও ২ হাজার ৬৪১ জন সংক্রমিত হয়েছে। এর ফলে চীনে ভাইরাসটিতে আক্রান্তের মোট সংখ্যা বেড়ে ৬৬ হাজার ৪৯২ জন হলো।

জানুয়ারির শেষের দিকে ১১ জনেক শনাক্ত করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম ইউরোপীয় দেশ হয়ে ওঠে ফান্স। এদের মধ্যে ছয় জন এখনও হাসপাতালে রয়েছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, নিহত চীনা গুরুতর অবস্থায় উত্তর প্যারিসের বিসাত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। করোনাভাইরাসের কারণে ফুসফুসের সংক্রমণে তার মৃত্যু হয়।

“এই লোকের মেয়েও সংক্রমিত, তবে তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন।”

ফ্রান্সে সংক্রিমত বাকি পাঁচজনই ব্রিটিশ নাগরিক যারা একটি রিসোর্টের একটি শ্যালেতে গিয়ে ভাইরাসে আক্রান্ত হন।

চীনের মূল ভূখণ্ডের বাইরে ২৪টি দেশে অর্ধ সহস্রাধিক সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

এর আগে জাপানের বন্দরে কোয়ারান্টিনে থাকা ডায়মন্ড প্রিন্সেস ক্রুজ জাহাজে আটকে থাকা আমেরিকানদের সরিয়ে নিতে জাপানে একটি বিমান পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র।

ওই জাহাজে থাকা ৩ হাজার ৭০০ জনের মধ্যে ২১৮ জনকে পরীক্ষা করে কোভিড-১৯ নামে নতুন ভাইরাসটি পাওয়া গেছে। অস্ট্রেলিয়াও তার নাগরিকদের জাহাজ থেকে সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে বিবেচনা করছে।

এদিকে বেইজিং শহরে ফেরা প্রত্যেককে ১৪ দিনের জন্য কোয়ারান্টিনে থাকা বাধ্যতামূলক করে সরকার। যারা এটা মানবেন না তাদের কঠোর শাস্তির হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।

এর মধ্যে শুক্রবার আফ্রিকা মহাদেশে নতুন করোনভাইরাসের প্রথম সংক্রমণের ঘটনা নিশ্চিত হয়েছে মিশরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। আক্রান্ত ব্যক্তিদের বিদেশি হিসেবে বর্ণনা করলেও তাদের জাতীয়তা প্রকাশ করা হয়নি।

ছয়জন স্বাস্থ্যকর্মীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে চীন। হুবাইয়ের হাসপাতালে মাস্ক, গগলস ও প্রতিরক্ষামূলক প্রতিরক্ষামূলক সরঞ্জাম সরবরাহ করতে স্থানীয় কর্তৃপক্ষগুলিকে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

সূত্র:রয়টার্স/বিডিনিউজ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ