ঢাকা, বুধবার 1 April 2020, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, ৬ শাবান ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

ইসলামভীতি ছড়িয়ে দেয়ার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়া উচিত: জাতিসংঘ মহাসচিব

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্থেনিও গুতেরেস বিশ্বজুড়ে ইসলামভীতি ছড়িয়ে পড়ার ব্যাপারে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, এর পরিণতি সহ্যের সীমা ছাড়িয়ে যাবে। উগ্র ডানপন্থীদের পক্ষ থেকে শরণার্থী ও অভিবাসীদের ওপর হামলার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেছেন, আমাদের সবারই উচিত ইসলাম আতঙ্ক ছড়িয়ে দেয়ার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া। কেননা ঘৃণা ও বিদ্বেষ ইসলামভীতি ছাড়ানোর কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে।

তিনি উল্লেখ করেন, উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর আবির্ভাব, পাশ্চাত্যের দেশগুলোতে সন্ত্রাসী হামলার বিস্তার, শরণার্থী সংকট যাদের বেশিরভাগই মুসলিম জনগোষ্ঠী প্রভৃতি ঘটনা ইসলামভীতি ছড়ানোর জন্য পাশ্চাত্যের অনেক রাজনীতিবিদ ও গণমাধ্যমের হাতিয়ারে পরিণত হয়েছে।

জাতিসংঘ মহাসচিব ইউরোপ ও আমেরিকার রাজনীতিবিদদের নানা উগ্র কথাবার্তার সমালোচনা করে বলেন, তারা নির্বাচনে বেশি ভোট লাভের আশায় সন্ত্রাসী হামলার সাথে মুসলমানদেরকে জড়ানোর চেষ্টা করছে এবং ওই সব দেশে সন্ত্রাসবাদ, বেকারত্ব ও নিরাপত্তাহীনতার জন্য মুসলমানদেরকে দায়ী করছে। ওইসব রাজনীতিবিদদের এসব কর্মকাণ্ড ইসলামভীতি ছড়ানোর পাশাপাশি মুসলমানদের বিরুদ্ধে সহিংসতার বিস্তার ঘটাচ্ছে। 

জাতিসংঘ মহাসচিব ছাড়াও সম্প্রতি মার্কিন রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড্যানিয়েল বেঞ্জামিন বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তো সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলা করছেই না বরং সন্ত্রাসবাদ বিস্তারে সহায়তা করছেন।তিনি বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর এক বিতর্কিত নির্দেশে বেশ কিছু মুসলিম দেশের নাগরিকদের আমেরিকায় প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। বর্তমানে তিনি ওই নিষেধাজ্ঞার তালিকায় মুসলিম দেশের সংখ্যা বাড়িয়েই চলেছেন। তার এ পদক্ষেপ আমেরিকায় মুসলমানদের বিরুদ্ধে সহিংসতা উস্কে দিচ্ছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সম্প্রতি সন্ত্রাসবাদ ও ইসলামকে এক কাতারে ফেলে বক্তব্য দিয়েছেন। এ অবস্থায় জাতিসংঘ মহাসচিব বলেছেন, এ ধরণের বিদ্বেষপূর্ণ আচরণ ইসলাম ও মুসলিম বিদ্বেষ ছড়িয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখছে।

এ ছাড়া, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানিসহ ইউরোপের আরো অনেক দেশেও মুসলমানদের বিরুদ্ধে সহিংসতা ও বৈষম্যের ঘটনা বহুগুণে বৃদ্ধি পেয়েছে। উগ্রপন্থীদের হাতে মসজিদে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নি সংযোগ, মুসলমানদেরকে হেনস্থা করা কিংবা শরিরিকভাবে নির্যাতন করার ঘটনা ঘটছে এসব দেশে। এ ছাড়া পাশ্চাত্যে শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রেও মুসলমানদের সঙ্গে বৈষম্য করা হচ্ছে।  

ইসলাম বিদ্বেষ ছড়িয়ে দেয়ার কারণেই গত বছর ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের দুটি মসজিদে উগ্র এক খ্রিষ্টানের নির্বিচার গুলিবর্ষণে অনেক মুসল্লি নিহত হয়। এ কারণে জাতিসংঘ মহাসচিব এ ধরণের উগ্রবাদ রুখে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

সূত্র: পার্স টুডে

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ