ঢাকা, বৃহস্পতিবার 9 April 2020, ২৬ চৈত্র ১৪২৬, ১৪ শাবান ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

দিল্লিতে নাগরিকত্ব আইনবিরোধী বিক্ষোভে নিহত বেড়ে ৭

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ভারতের রাজধানী দিল্লিতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বিরুদ্ধে প্রতিবাদকে কেন্দ্র করে ভয়াবহ সহিংসতায় পুলিশের এক হেড কনস্টেবলসহ সাত জন নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ৬ বেসামরিক ব্যক্তি। ওই ঘটনায় কমপক্ষে ১০৫ জন আহত হয়েছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার দিনভর পাল্টাপাল্টি পাথর নিক্ষেপ, যানবাহন ও দোকানপাটে অগ্নিসংযোগের ঘটনা্ ঘটেছে।

সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, সফররত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দিল্লি পৌঁছানোর কয়েক ঘণ্টা আগে ভারতের রাজধানী শহর রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। ট্রাম্পের ভারত সফর শুরুর আগের দিনই উত্তর দিল্লির মৌজপুর এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বিতর্কিত সিএএ সমর্থক ও বিরোধিতাকারীদের মধ্যকার ওই সংঘর্ষ বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়ে এবং আরো সহিংস হয়ে ওঠে।

ভারতীয় নাগরিকত্ব আইন সংশোধনের মাধ্যমে প্রথমবারের মত ধর্মকে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার নির্ধারক হিসেবে রাখা হয়েছে। নাগরিকত্ব আইন (সিএএন) সংশোধন করে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের হিন্দুসহ কয়েকটি ধর্মাবলম্বীদের ভারত তাদের দেশের নাগরিকত্ব পাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে।বিতর্কিত এই আইন প্রত্যাহারের দাবিতে দেশজুড়ে সরব হয়েছে একাধিক রাজনৈতিক দল। এছাড়া এই নিয়ে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে চলছে দফায় দফায় বিক্ষোভ।এই বিক্ষোভে এই পর্যন্ত প্রায় ৩০ জন নিহত হয়েছেন ।

ভারতীয় সরকার সরকার বলছে, নাগরিকত্ব নেয়ার জন্য নয় দেয়ার জন্যই নাগরিক আইন সংশোধন করা হয়েছে। তবে সমালোচকরা বলছে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন মুসলমানদের জন্য বৈষম্যমূলক।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ