ঢাকা, বুধবার 1 April 2020, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, ৬ শাবান ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

করোনাভাইরাসের জন্য হাসপাতাল প্রস্তুত আছে: প্রধানমন্ত্রী

সংগ্রাম অনলাইন : করোনাভাইরাস এখনও বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, যদি এ প্রাণঘাতী ভাইরাসটি দেশে এসে যায় তার জন্য একটি হাসপাতাল নির্দিষ্ট করে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছাড়া, এ বিষয়ে চিকিৎসক ও নার্সদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী তার কার্যালয়ের শাপলা হলে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) নবনির্বাচিত দুই মেয়র ও কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। খবর ইউএনবি’র। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে করোনাভাইরাস মুক্ত রাখতে সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে।

বার্তা সংস্থা এপির প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ডিসেম্বর থেকে ছড়িয়ে পড়া নতুন করোনাভাইরাসে প্রায় ৫০ দেশের ৮২ হাজারের অধিক মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ২ হাজার ৮ শতাধিক। আক্রান্ত ও নিহতদের বেশিরভাগই চীনের নাগরিক।

এদিকে, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কেন্দ্রস্থল চীনের উহান থেকে আরও ২৩ বাংলাদেশি নাগরিককে সরানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার একটি বিশেষ ফ্লাইটে করে ভারতীয় নাগরিকের সাথে তাদের দিল্লি নিয়ে যাওয়া হয় বলে ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন জানিয়েছে।

এসব বাংলাদেশিকে দিল্লি শহরতলীতে বিশেষ জায়গায় আলাদা করে রাখা হবে।

বাংলাদেশ গত ১ ফেব্রুয়ারি ৩১২ নাগরিককে চীন থেকে ফিরিয়ে আনে। আরও বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি দেশে ফিরে আসতে নিবন্ধন করেন। পরে ভারত প্রয়োজনীয় অনুমতি পাওয়া সাপেক্ষে উহান থেকে ভারতীয় নাগরিকদের সাথে কয়েকজন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকেও বিমানে করে ফিরিয়ে আনতে আগ্রহ দেখায়।

অন্যদিকে, সিঙ্গাপুরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে যে তাদের দেশে পাঁচ বাংলাদেশি নাগরিক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সেই সাথে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৩৯ বছর বয়সী এক বাংলাদেশির শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে বলে দেশটির সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ