ঢাকা, সোমবার 23 March 2020, ৯ চৈত্র ১৪২৬, ২৭ রজব ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

শতাধিক এটিএম কার্ডের তথ্য চুরি করে অর্ধকোটি টাকা লোপাট

স্টাফ রিপোর্টার : অনলাইনে ব্যাংকের এটিএম কার্ডধারীদের তথ্য চুরি করে অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র। কক্সবাজার, যাত্রাবাড়ী ও ফরিদপুর থেকে এই চক্রের প্রধানসহ তিন জনকে গ্রেফতার করেছে সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ বিভাগের সোস্যাল মিডিয়া টিম। ২০-২১ মার্চ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার হওয়া প্রতারকরা হলেন, মামুন তালুকদার, রাজু ফারাজী ও মিঠু মৃধা।
সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ বিভাগের সোস্যাল মিডিয়া টিমের সহকারী কমিশনার ধ্রুব জ্যোতির্ময় গোপ জানান, বেশ কিছু মাস ধরে এই প্রতারক চক্র অভিনব ও সুনিপুণ কায়দায় কয়েকটি ব্যাংকের হেড অফিসের কার্ড ডিভিশনের মোবাইল নম্বর স্পুফড করে শাখা-ম্যানেজারদের কল দিয়ে আগের মাসের নতুন কার্ড ব্যবহারকারীদের নাম, কার্ড নম্বর এবং মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করতেন। এরপর প্রতারকরা ব্যাংকের কাস্টমার কেয়ার এজেন্ট সেজে গ্রাহকদের কল করে বলতো যে তারা ব্যাংক থেকে তার নতুন কার্ডটি অ্যাকটিভ করা বা অন্য কিছু ফিক্সড করতে কল করেছে। এরপর চক্রটি কৌশলে স্পুফড মোবাইল কলের মাধ্যমেই গ্রাহকদের কার্ডের মেয়াদ, ৩/৪ ডিজিটের সিভিভি কোড এবং প্রয়োজন সাপেক্ষে মোবাইলের ওটিপি সংগ্রহ করে গ্রাহকদের কার্ড থেকে টাকা/ডলার প্রতারকদের লন্ডনভিত্তিক ই-কমার্স অ্যাপ স্ক্রিল অ্যাকাউন্ট, বিকাশ বা নগদে ট্রান্সফার করে ও পরবর্তী সময়ে এটিএম বুথ বা বিকাশ বা নগদ এজেন্ট থেকে ক্যাশ আউট করতো।
ডিএমপি সূত্রে জানা গেছে, এভাবে দেশের একাধিক ব্যাংকের শতাধিক গ্রাহকের অর্ধকোটি টাকা চুরি গেলে কয়েকটি ব্যাংক কর্তৃপক্ষ গত ৫ মার্চ ডিএমপি’র সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের ডিসি আ ফ ম আল কিবরিয়ার কাছে অভিযোগ জানালে তিনি সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংককে ঘটনাটি অবহিত করেন। এরপরই ঢাকা, ফরিদপুরের ভাঙ্গা এবং কক্সবাজারের প্রায় লক্ষাধিক মোবাইল নম্বর ও ডায়লার অ্যাপসের আইপি বিশ্লেষণসহ উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে এই প্রতারক চক্রকে শনাক্ত করা হয়।
গ্রেফতারের সময়ে তাদের কাছ থেকে ব্যাংকিং প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত একটি এক্সিও গাড়ি, ৭টি বিশেষ অ্যাপসযুক্ত মোবাইল ফোন, বহু ভুয়া রেজিস্ট্রেশনকৃত মোবাইল সিমকার্ড, একাধিক ব্যাংক, বিকাশ, নগদ ও স্ক্রিল অ্যাকাউন্ট জব্দ করা হয়।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা তাদের অপরাধের কথা স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছেন এডিসি নাজমুল ইসলাম। তিনি বলেন, এই ঘটনায় ডিএমপির ধানমন্ডি থানায় মামলা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ