ঢাকা, মঙ্গলবার 24 March 2020, ১০ চৈত্র ১৪২৬, ২৮ রজব ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

করোনা পরিস্থিতি উত্তরণে সকল পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করুন -মিয়া গোলাম পরওয়ার

করোনা ভাইরাস থেকে দেশ ও জাতিকে নিরাপদ রাখার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ ও সরকারের মন্ত্রী-এমপিদের দায়িত্ব জ্ঞানহীন বক্তব্য বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার বলেন, সারা বিশ্বের আলেম-উলামা ও ইসলামী চিন্তাবিদগণ একমত পোষণ করেছেন যে, বর্তমান বিশ্বের চলমান যে মহামারি তা মানুষের কারণেই। পবিত্র কুরআনে আল্লাহপাকের ঘোষণা, ‘তোমাদের ওপর যে বিপদ-আপদ আসে তা তোমাদেরই হাতের কামাই। আর অনেক অপরাধ তো তিনি ক্ষমাই করে দেন’। (সূরা আশ-শুরা: ৩০)। 
গতকাল সোমবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি বলেন, বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের অব্যাহত বিস্তৃতিতে দেশের মানুষ উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার মধ্যে আছেন। মানুষ তার কৃতকর্মের জন্য অনুশোচনায় কাতর হয়ে আল্লাহর নিকট ধরণা দিচ্ছে। এমতাবস্থায় করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত না হয়ে আল্লাহর সাহায্য প্রার্থী হওয়া উচিত।
তিনি বলেন, রাষ্ট্রের দায়িত্বে নিয়োজিত সরকার দেশ ও জাতিকে নিরাপদ রাখার জন্য এখনো কার্যকর ও সন্তোষজনক কোনো পদক্ষেপ নিতে পারেনি। দেশের নাগরিকদের অনিরাপদ অবস্থায় রেখে সরকারের কতিপয় মন্ত্রী-এমপিগণ যে ধরনের বেফাঁস কথা-বার্তা বলছেন, তা নিতান্তই বাড়াবাড়ি ছাড়া আর কিছু নয়। একজন মন্ত্রী বলেছেন, ‘করোনা ভাইরাসের চেয়ে আমরা শক্তিশালী।’ আরেক মন্ত্রী বলেছেন, ‘শেখ হাসিনা থাকতে করোনা ভাইরাস আমাদের কিছুই করতে পারবে না।’ এক মন্ত্রী বলেছেন, ‘আমরা করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়েছি।’ আরেক জন মন্ত্রী বলেছেন, ’করোনা ভাইরাস মারাত্মক কোনো রোগ নয়, সাধারণ সর্দি-জ্বরের মতই।’ ২৩ মার্চ মাননীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেছেন, ‘ডাক্তারদের পিপিই-এর প্রয়োজন নেই।’ স্বাস্থ্য মন্ত্রীর এ বক্তব্য অগ্রহণযোগ্য, অপ্রত্যাশিত ও অনভিপ্রেত এবং গোটা চিকিৎসা ব্যবস্থার সাথে উপহাসের শামিল। ইতোমধ্যেই খবর প্রকাশিত হয়েছে যে, ৪ জন ডাক্তার ও ২ জন নার্স কোয়ারেন্টিনে আছেন এবং একজন ডাক্তার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের এ ধরনের অযাচিত বক্তব্য অহমিকা ও অজ্ঞতার বহিঃপ্রকাশ এবং জনগণের সাথে উপহাস ছাড়া আর কিছু নয়।
তিনি আরো বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের সরকার নিজ নিজ দেশে করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তিলাভের জন্য বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। সে তুলনায় বলতে গেলে আমাদের দেশের সরকার কোনো ব্যবস্থাই গ্রহণ করেননি। আমরা বলতে চাই, করোনা ভাইরাস যে মহান আল্লাহ তায়ালা সৃষ্টি করেছেন, তাঁর সাহায্য ছাড়া পরিত্রাণ পাওয়ার কোনো উপায় নেই। মন্ত্রী-এমপিগণ এ ধরনের আচরণ পরিহার করে আল্লাহর কাছে বিনয়ী হোন ও ক্ষমা প্রার্থনা করুন। দেশ ও জাতিকে হেফাযতের জন্য মহান আল্লাহর কাছে ধরণা দিন। করোনা ভাইরাসের মহামারি থেকে মুক্তিলাভের জন্য কুরআন-হাদীসের নির্দেশনা মেনে চলুন এবং আলেম-উলামাদের পরামর্শ গ্রহণ করুন। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের লক্ষ্যে পর্যাপ্ত চিকিৎসাসহ সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য তিনি সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ