ঢাকা, বৃহস্পতিবার 26 March 2020, ১২ চৈত্র ১৪২৬, ৩০ রজব ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

রাশিয়ার কুরিল দ্বীপপুঞ্জের উপকূলে ৭.৫ মাত্রার ভূমিকম্প

২৫ মার্চ, রয়টার্স: রাশিয়ার কুরিল দ্বীপপুঞ্জের উপকূলে ৭ দশমিক ৫ মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছে বলে যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস) জানিয়েছে।

গতকাল বুধবার উপকূলে ভূমিকম্পের পর থেকে কুরিল দ্বীপপুঞ্জের উত্তর অংশের বাসিন্দারা সুনামির হুমকির মধ্যে আছেন বলে রাশিয়ার জরুরি বিভাগের বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা। 

ভূমিকম্পের পর থেকে ঢেউয়ের আকারে সামান্য পরিবর্তন হয়েছে এবং কোনো হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছে তারা।

“সেভেরো-কুরিলস্ক উপকূলে সাখালিনের স্থানীয় সময় বেলা সোয়া ৩টার দিকে ৫০ সেন্টিমিটার উঁচু এক সুনামি ঢেউ এসেছে,” বলেছে রাশিয়ার জরুরি বিভাগ।

সুনামির আশঙ্কা অব্যাহত থাকায় ওই এলাকার বাসিন্দারা নিরাপদ এলাকায় বা উঁচু এলাকায় আশ্রয় নিয়েছেন এবং ভাটা শুরু হওয়ার পর সতর্র্কতা বাতিল করার বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা সিদ্ধান্ত নিতে পারেন বলে জানিয়েছে তারা। এই ভূমিকম্পের পর জাপানের আবহাওয়া কর্তৃপক্ষগুলো কোনো সুনামি সতর্র্কতা জারি করেনি বলে রয়টার্স জানিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের কর্তৃপক্ষগুলো প্রথমে হাওয়াইয়ে সুনামি সতর্র্কতা জারি করেলেও পরে তা বাতিল করে।

এই ভূমিকম্পের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিম উপকূল, আলাস্কা ও কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়ায় কোনো সুনামি আশঙ্কা নেই বলে যুক্তরাষ্ট্রের প্যাসিফিক সুনামি ওয়ার্নিং সেন্টার জানিয়েছে।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিম উপকূলীয় কোনো কোনো এলাকায় ক্ষতিকারক নয় সমুদ্রপৃষ্ঠের এমন পরিবর্তনের অভিজ্ঞতা হতে পারে বলে জানিয়েছে তারা।

জাপানের আবহাওয়া অ্যাসোসিয়েশনও জোয়ারে সামান্য পরিবর্তন হতে পারে বলে জানিয়েছে, তবে কোনো সতর্র্কতা বা পর্যবেক্ষণের পরামর্শ দেওয়া হয়নি বলে নিশ্চিত করেছে।

ইউএসজিএস জানিয়েছে, কুড়িল দ্বীপপুঞ্জের সেভেরো শহর থেকে ২১৮ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্ব দিকে সমুদ্রতলের ৫৬ দশমিক ৭ কিলোমিটার গভীরে ভূমিকম্পটির উৎপত্তি।   

প্রাথমিকভাবে তারা ভূমিকম্পটির মাত্রা ৭ দশমিক ৮ বলে জানিয়েছিল, পরে সংশোধন করে মাত্রা ৭ দশমিক ৫ বলে জানায়। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ