ঢাকা, শুক্রবার 27 March 2020, ১৩ চৈত্র ১৪২৬, ১ শাবান ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

রুপসী বাংলা জুট মিলে পুলিশের গুলিতে শ্রমিক হত্যায়  তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের

স্টাফ রিপোর্টার: দিনাজপুরে রুপসী বাংলা জুট মিলে পুলিশের গুলিতে শ্রমিক হত্যায় তিব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ, শ্রমিক হত্যার জন্য দায়ি মালিক ও পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার বিচার ও নিহত-আহত শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণসহ বকেয়া মজুরি পরিশোধের দাবি জানিয়েছে-সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শ্রমিকনেতা রাজেকুজ্জামান রতন এবং সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব বুলবুল। 

গতকাল বৃহম্পতিবার এক বিবৃতিতে এই দাবি জানায়। বিবৃতিতে শ্রমিকনেতারা গত বুধবার রাত ১০টায়  দিনাজপুরের বিরল উপজেলায় অবস্থিত রুপসী বাংলা জুট মিলে বকেয়া মজুরির দাবিতে আন্দোলনকারি শ্রমিকদের উপর পুলিশের গুলিবর্ষণে এক জন শ্রমিকের মৃত্যু এবং ১৫ জনের অধিক শ্রমিক আহত হওয়ার ঘটনায় তিব্র নিন্দা, ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানান।

শ্রমিকনেতারা বলেন, সারাদেশের শ্রমজীবী মানুষ যখন করোনা সংক্রমণের উদ্ভূত পরিস্থিতিতে অসহায় বোধ করছে সেইসময়ও মালিকরা শ্রমিকদের অগ্রিম বেতন দিয়ে শ্রমিকদের রক্ষা করার পরিবর্তে শ্রমিকদের মজুরি বকেয়া রাখা, প্রাপ্য মজুরি আত্মসাৎ করার মতো নিকৃষ্টতম কাজ করছে। অথচ এই অন্যায় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সরকার-প্রশাসন মালিকদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ না করে উল্টো প্রাপ্য মজুরি চেয়ে আন্দোলনরত শ্রমিকদের উপর গুলি চালিয়ে পুলিশ রাষ্ট্রিয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিবর্তে মালিকের ভাড়াটিয়া বাহিনী হিসাবে ভূমিকা পালন করেছে। 

নেতারা গুলি করে শ্রমিক হত্যার জন্য দায়ী মালিক এবং পুলিশ কে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনা, নিহত শ্রমিকের পরিবারকে আজীবন আয়ের সমান ক্ষতিপূরণ, আহত শ্রমিকদের চিকিৎসা-ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থাসহ সকল শ্রমিকের বকেয়া মজুরি পরিশোধ করার দাবি জানিয়ে বলেন, করোনা সংক্রমণের কারণে সমস্থ ধরণের সমাবেশের উপর নিষেধাজ্ঞার সুযোগ নিয়ে অপরাধি মালিককে বাচাঁনোর চেষ্টা করা হলে উদ্ভুত পরিস্থিতির দায় প্রশাসনকে বহন করতে হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ