ঢাকা, শুক্রবার 27 March 2020, ১৩ চৈত্র ১৪২৬, ১ শাবান ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

খুলনায় গাদাগাদির মধ্যেই বিক্রয় হচ্ছে টিসিবি পণ্য

 

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী উদ্যাপন এবং মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১৭ মার্চ শুধুমাত্র খুলনা মহানগরীতে ১৮টি ট্রাক সেল শুরু করে ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। এদিকে করোনাভাইরাস বিস্তার রোধে সাধারণ ছুটি ঘোষণাসহ নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। গাদাগাদির লাইনের মাধ্যমে টিসিবি’র পণ্য বিক্রয় করা হলেও ক্রেতারা নির্দেশনা মানেন না বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

জানা গেছে, জনগণের মাঝে নায্যমূল্যে পণ্য বিক্রয় করে টিসিবি। মুজিববর্ষেও জনগণের মাঝে নায্যমূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রয়ের জন্য ১৭ মার্চ থেকে ট্রাক সেলের মাধ্যমে খুলনায় ডাল, চিনি ও তেল বিক্রয় করা শুরু হয়। ডাল ও চিনি কেজি প্রতি ৫০ টাকা এবং সয়াবিন তেল এক লিটার ৮০ টাকা এবং পেঁয়াজ ৩৫ টাকা কেজি দরে বিক্রয় করা হয়। 

এদিকে করোনা আতঙ্কের মধ্যেই খুলনায় টিসিবি পণ্য বিক্রয় শুরু করা হলেও নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশনা বাস্তবায়িত হচ্ছে না। টিসিবি পণ্য কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়েছে নগরবাসী। এদিকে দুপুরের আগেই বিক্রয় শেষ হয় টিসিবি’র পণ্য।

মহানগরীর ময়লাপোতা মোড়ে টিসিবি পণ্য কিনতে আসা জাকির হোসেন বলেন, করোনার কারণে অধিকাংশ দোকানপাট বন্ধ। টিসিবি’র পণ্য কেনার জন্য সকালে এসে লাইন দিতে হয়। নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখা উচিত তবে কেউ না মানায় তিনিও মানেন না।

ডাকবাংলো মোড় এলাকার বাসিন্দা সুমাইয়া খাতুন বলেন, টিসিবি’র পণ্য নায্যমূল্যে পাওয়া যায় এবং বিক্রয় হচ্ছে বলে সবাই আতঙ্কের মধ্যে কিনতে যায়। পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশি পাহারায় টিসিবি পেঁয়াজ বিক্রয় করলেও এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে কোনো শৃঙ্খলা রাখার বালাই নেই।

ময়লাপোতা মোড়ে পণ্য বিক্রয় করা জাবেদ হোসেন বলেন, সবাই আগে নেওয়ার জন্য ব্যস্ত। কেউ কোনো নির্দেশনা মানে না। একজন আরেকজনের গায়ে লেগে দাঁড়ায়। নিষেধ করলেও মানেন না।

টিসিবি আঞ্চলিক অফিস প্রধান রবিউল মোর্শেদ বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১৭ মার্চ থেকে খুলনা মহানগরীর ১৮টি পয়েন্টে টিসিবি’র ট্রাক সেলের মাধ্যমে পণ্য বিক্রয় শুরু করা হয়। করোনা আতঙ্কের মধ্যে যাতে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের বাজার মূল্য বৃদ্ধি পেতে না পারে সেজন্য বিক্রয় চালু রাখা হয়েছে। তবে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশনা ক্রেতারা মানছেন না। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ