মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জামায়াত নেতা গ্রেফতার ॥ মিথ্যা মামলায় জড়ানোর অপচেষ্টা

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা শাখার সেক্রেটারি মাওলানা মোঃ ওমর ফারুককে রাজারামপুর মসজিদ থেকে নামায পড়ে বের হওয়ার সময় অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার এবং উদ্দেশ্যেপ্রণোদিতভাবে গান পাউডার দিয়ে বিস্ফোরক মামলায় জড়ানোর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখা। গতকাল শনিবার এক যৌথ বিবৃতিতে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার আমীর মাওলানা মোঃ আবুজার গিফারি ও সেক্রেটারি মোঃ আবু বকর বলেন, গান পাউডার ও অস্ত্রের মতো স্পর্শকাতর ইস্যুকে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করছে সরকার ও পুলিশ।
নেতৃবৃন্দ বলেন, জামায়াতে ইসলামী চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা শাখার সেক্রেটারি মাওলানা মোঃ ওমর ফারুককে গতকাল রাত সাড়ে আটটায় এশার নামায পড়ে বের হওয়ার সময় তার নিজ এলাকা উপর রাজারামপুর থেকে পুলিশ অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায়। থানায় তাকে রাতভর নির্মম নির্যাতন করে পরে গান পাউডার  দিয়ে বিস্ফোরক মামলায় আদালতে প্রেরণ করে আমরা মনে করি পুলিশ উদ্দেশ্যে প্রণোদিতভাবে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের জন্য তাকে গান পাউডারের মত সাজানো মামলায় জড়িয়েছে। পুলিশের এই দায়িত্বহীন কর্মকান্ড রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক।
নেতৃবৃন্দ বলেন, গান পাউডারের মতো স্পর্শকাতর ইস্যু নিয়ে একের পর এক দায়িত্বহীন ও প্রশ্নবিদ্ধ ঘটনার জন্য পুলিশের প্রতি জনগণ এমনিতেই বিরক্ত ও ক্ষুদ্ধ। এরপরও এই ধরনের ঘটনা জনগণকে আরো বিক্ষুব্ধ করবে। আমরা অবিলম্বে এই সাজানো মামলা প্রত্যাহার করে গ্রেপ্তারকৃত জামায়াত নেতার মুক্তি দাবি করছি। একই সাথে এই ঘটনাকে অপরাজনীতির হাতিয়ার বানানোর ঘৃণ্য কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি আহবান জানাচ্ছি।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ