রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

রাবিতে র‌্যাগিংয়ের সাথে জড়িত শিক্ষার্থী শিবিরের কেউ নয়

রাবি রিপোর্টার : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রপ সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি বিভাগের ইসমাঈল নামের শিক্ষার্থী র‌্যাগিংয়ের ঘটনায় আটককৃত আল-আমিন শিবিরের সাথে কোন সংশ্লিষ্টতা নেই বলে দাবি করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রশিবির। বুধবার বিকেলে শিবির সভাপতি লাবিব আব্দুল্লাহ ও সেক্রেটারি নাবিল আহমেদ স্বাক্ষরিত যৌথ এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।
রাবি শিবির নেতৃবৃন্দ ছাত্রলীগকে চ্যালেঞ্জ করে বিবৃতিতে উল্লেখ করে বলেন, আল আমিন যদি ছাত্রশিবিরের থাকে তাহলে সে রাবি শিবিরের কোন ইউনিটে এবং কোনপদে আছে? তা সুনির্দিষ্ট তথ্য দিয়ে প্রমাণ করুণ। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের একটা বড় অংশ র‌্যাগিং, সন্ত্রাস, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, ভর্তিবাণিজ্য, প্রশ্নপত্র ফাঁসসহ নানা কেলেঙ্কারিতে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত। ছাত্রলীগ নিজেদের অপকর্মকে ঢাকতে শিবিরকে জড়িয়ে যে নির্লজ্জ মিথ্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে তা তাদের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে।
বিবৃতিতে আরও উল্লেখ করেন, র‌্যাগিংয়ের বিরুদ্ধে ছাত্রশিবিরের অবস্থান সুস্পষ্ট, আমাদের কোন নেতাকর্মী এ ধরণের অনৈতিক, অমানবিক কর্মকান্ডের সাথে কোন সময় জড়িত ছিলনা বর্তমানেও নেই। ছাত্রশিবির সবসময় ছাত্রসমাজের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করা এবং তাদের নিরাপত্তার বিষয়ে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে থাকে।  এ ঘটনায় জড়িতদের সুষ্ঠু তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য কর্তৃপক্ষের নিকট আহবান জানান। রাবিসহ দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের  র‌্যাগিং নামক এ ধরনের অমানবিক কাজ থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানান।
উল্লেখ্য, গত ২৫ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রপ সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ফাহাদ বিন ইসমাঈলকে ‘অমানবিক’ র‌্যাগিং করার অভিযোগ উঠে একই বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আল-আমীনসহ তার সহপাঠীদের বিরুদ্ধে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ