সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে জনপ্রতিরোধ গড়ে তুলুন -মির্জা ফখরুল

গতকাল রাজধানীর একটি কনভেনশন হলে ঢাকাস্থ জাতীয়তাবাদী ছাত্রকল্যাণ ফোরাম রংপুর মেডিকেল কলেজের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে বক্তব্য রাখেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে জনপ্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গতকাল শনিবার ধানমন্ডির ফখরুদ্দিন কনভেশন সেন্টারে জাতীয়তাবাদী প্রাক্তন ছাত্রকল্যাণ পরিষদ, রংপুর মেডিকেল কলেজ’ আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দুঃশাসন থেকে জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন দিকে ফেরাতে পাখির মতো গুলী করে মানুষ হত্যা করা হচ্ছে। এভাবে চলতে পারে না। এই অভিযানকে আমরা শুরু থেকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছি।
তিনি বলেন, এর পেছনে ভিন্ন কারণ আছে। রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের টার্গেট, সে উদ্দেশ্যে কক্সবাজারে কমিশনারকে হত্যা করা হলো। এলাকার সবাই বলছেন তিনি ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিলেন না। প্রকাশিত অডিও প্রমাণ করে- অভিযান সরকার ভিন্নদিকে প্রবাহিত করছে। এভাবে বিচারবহির্ভূত হত্যা চলতে পারে না। এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।
বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ট্রাফিক সিস্টেম থেকে শুরু করে দেশের সবকিছুতে অচলাবস্থা। সরকার গণতন্ত্র ধ্বংস করে দিয়েছে, সুশাসন বলতে কিছু নেই। যে কারণে জনজীবন অতিষ্ট আজ। কেউ কোথাও বিচার পায় না। না আদালতে, না অন্য কোথাও।
তিনি বলেন, এই অবস্থা চলতে দেয়া যায় না। সমগ্র জাতিকে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। তার জন্য জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করতে হবে। সকল স্তরের জনগণ নিয়ে গণআন্দোলনের মাধ্যমে এ দানবীয় সরকারকে সরাতে হবে।
মির্জা ফখরুল বলেন,  আমরা এই অভিযানকে প্রথমেই প্রশ্নবিদ্ধ করেছি। এই অভিযান চালানো হয়েছে সম্পূর্ণভাবে একটি ভিন্ন উদ্দেশ্যে, একটি ভিন্ন কারণে। আমরা যেটা আশঙ্কা করেছিলাম যে, এটাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হবে কিনা। আজকে এই অডিওর মধ্য দিয়ে.. এটা যদি সত্য হয়ে থাকে তাহলে নিঃসন্দেহে এটা প্রমাণিত হচ্ছে যে, এই অভিযানের মধ্য দিয়ে সরকার জনগণের দৃষ্টি অন্যদিকে প্রবাহিত করতে চায়।’
মির্জা ফখরুল সরকারের এমন দমননীতির কঠোর সমালোচনা করে বলেন, তাদের যে দুঃশাসন, তাদের  যে অন্যায়-অত্যাচার-হত্যা কল্পনা করা যায়? একটা স্বাধীন মুক্ত দেশে পাখির মতো মানুষকে গুলি করে মারা হচ্ছে তার কোনো বিচার হবে না। বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড- এ কোন দেশে বাস করছি আমরা? এটা কী সেই জঙ্গলের মধ্যে, জঙ্গি আইন এখানে আছে। এগুলোকে প্রতিরোধ করে আমাদের দাঁড়াতে হবে। আজকে আমাদের পথে নামতে হবে, পথেই এদের পরাজিত করতে হবে।
তিনি বলেন, দেশকে ধ্বংস করে দেবার যে ষড়যন্ত্র, দেশকে একেবারে দুর্বল করার যে ষড়যন্ত্র, সেই ষড়যন্ত্রকে রুখে দিতে হলে অবশ্যই জাতীয় ঐক্য ও জনগণের ঐক্য সৃষ্টি করতে হবে। এই সম্মিলিত ঐক্যের মাধ্যমে যে দানব আমাদের ওপর চেপে বসেছে তাকে একটি আন্দোলনের মধ্য দিয়ে সরাতে হবে। অনুষ্ঠানে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি একেএম আজিজুল হক, সহসভাপতি ফরহাদ হালিম ডোনার, কোষাধ্যক্ষ মোস্তাক রহিম স্বপন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ