মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪
Online Edition

দলে বড় পরিবর্তনের ইঙ্গিত॥ মেজর সার্জারি করবেন পিসিবি প্রধান

 

স্পোর্টস ডেস্ক : অল্প রানের টার্গেটেও ভারতের কাছে হেরেছে পাকিস্তান। এতে বাবর-রিজওয়ানদের মুন্ডপাত চলছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। একের পর এক সমালোচনার তীরে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের রক্তাক্ত করছেন দেশটির সাবেক ক্রিকেটাররা। কিন্তু সবচেয়ে বড় দাগালেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান মহসিন নকভি।লো স্কোরিং ম্যাচে পাকিস্তানের এমন হারে ক্রিকেটারদের একহাত নিয়েছেন তিনি। বলেছেন ছোটখাটো অস্ত্রোপচারে নয়, পাকিস্তান দলে বড় সার্জারির প্রয়োজন। এটিকে দলে ব্যাপক পরিবর্তনের ইঙ্গিত বলে মনে করছে পাকিস্তানের গণমাধ্যম।

দেশটির একাধিক গণমাধ্যমে নকভির বক্তব্য প্রচার করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, পিসিবির প্রধান বলেছেন, ‘প্রথমে মনে হয়েছিল ছোটখাটো একটা অস্ত্রোপচারেই হয়তো কাজ হয়ে যাবে। তবে ভারতের বিপক্ষে শোচনীয় পারফরম্যান্সের পর এটা স্পষ্ট যে, দলে বড়সড় সার্জারির দরকার হবে। আমাদের পারফরম্যান্স তলানিতে ঠেকেছে। দলের পারফরম্যান্সের মান বাড়ানোই এখন আমাদের বড় চ্যালেঞ্জ।’ নিউইয়র্কের নাসাউ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ভারতের দেয়া ১২০ রানের টার্গেটে ৭ উইকেটে ১১৩ রান করে পাকিস্তান। হেরে যায় ৬ রানে। ম্যাচে একপর্যায়ে জয়ের পথে ছিল বাবররা।

এর আগে প্রথম ম্যাচে সুপার ওভারে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হেরে গিয়েছিল পাকিস্তান। পরপর দুই ম্যাচে দলের এমন বাজে হার মানতে পারছেন না নকভি, ‘যেভাবে আমরা প্রথমে ইউএসএ এবং তারপর ভারতের কাছে হারলাম, তাতে আমাদের এখন দলের বাইরে থাকা ক্রিকেটারদের নিয়ে ভাবতে হবে।’ চলতি বছর জানুয়ারিতে পিসিবির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পান নকভি। পরে হন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। গণমাধ্যমে কথা বলার সময় ক্রিকেটারদের যাবতীয় সুযোগ সুবিধা দেয়া হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেছেন, 'সকলেই জিজ্ঞাসা করছেন কেন দল পারফর্ম করতে পারছে না। এখনো বিশ্বকাপে সুযোগ রয়েছে। তবে আমরা অবশ্যই বসব এবং সমস্ত বিষয় পর্যালোচনা করব।’

চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে আর ভাবতে চান না নকভি। আপাতত আগামী বছর ঘরের মাঠে হতে যাওয়া চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির জন্য শক্তিশালী দল গড়াই পিসিবির একমাত্র লক্ষ্য। নকভি বলেছেন, 'চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির জন্য আমাদের প্রস্তুত হতে হবে। দলের বাইরে যারা রয়েছে তাদের সুযোগ দিয়ে দেখা হবে।' নবম আসরে এখনো দুটো ম্যাচ বাকি পাকিস্তানের। কানাডা আর আয়ারল্যান্ডকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে, অপেক্ষায় থাকতে হবে গ্রুপের অন্যান্য ম্যাচের ফলের।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ