সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪
Online Edition

কোমরে ব্যথায় ওঠা-বসা কষ্টকর হচ্ছে? কী করবেন?

 অফিসে একটানা চেয়ারে বসে কাজ। চেয়ার থেকে ওঠার সময় টের পান যে সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারছেন না। আজকাল কম বয়সেও অনেকে কোমরের ব্যথায় ভোগেন। অলস জীবনযাপন, বিশেষত শরীরচর্চার প্রতি অনীহাই কোমরে ব্যথা বাড়িয়ে তোলে। শোয়া-বসার ভঙ্গিও এর পিছনে অনেকটা দায়ী। সপ্তাহে মাত্র ২ ঘণ্টা করে হাঁটলেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। আর রোজ হাঁটলে তো আরও ভাল। হাঁটলে সামগ্রিক স্বাস্থ্য উন্নত হয়। তবে, শরীরের নীচের অংশের সবচেয়ে বেশি এক্সারসাইজ হয়। ক্লিনিকাল রিহাবিলিটেশন জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণা থেকে জানা গিয়েছে, যাঁরা সপ্তাহে মাত্র ১ ঘণ্টা হাঁটেন, পিঠ-কোমরের ব্যথা অন্যদের থেকে দ্রুত কমে। হাঁটলে গোটা দেহে রক্ত সঞ্চালন উন্নত হয়। মেরুদণ্ডে ও রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায়। 

পাশাপাশি মেরুদণ্ডে অক্সিজেন ও পুষ্টি পৌঁছায়। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত টিস্যু মেরামত হয় এবং প্রদাহ কমে। দীর্ঘদিন ধরে কোমর-পিঠ ব্যথায় ভুগলে চাপ ও অ্যানজাইটি বৃদ্ধি পায়। এতে আরও যন্ত্রণা বৃদ্ধি পায়। হাঁটলে এই সমস্যাও এড়ানো যায়। আমেরিকান জার্নাল অফ প্রিভেনটিভ মেডিসিনে প্রকাশিত গবেষণা থেকে জানা গিয়েছে, দিনে মাত্র ৩০ মিনিট হাঁটলেই মানসিক চাপ কমে এবং পিঠ ও কোমরের ব্যথাও এড়ানো যায়। সপ্তাহে ৫ দিন হাঁটলেই উপকার পাবেন। হাঁটাহাঁটির পাশাপাশি খাদ্যাভ্যাস নিয়েও আপনাকে সচেতন থাকতে হবে। শারীরিক ব্যথা-যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে ডায়েটে ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিডে সমৃদ্ধ খাবার রাখুন। আমন্ড, আখরোট, চিয়া বীজ, সামুদ্রিক মাছে এই পুষ্টি পাবেন। এছাড়া দেহে প্রোটিনের ঘাটতি দেওয়া যাবে না। ডাল, দুধ, ডিম বেশি করে খান। এছাড়া তাজা ফল ও শাক-সবজি অবশ্যই ডায়েটে রাখুন।  তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ